1. [email protected] : শেয়ারবার্তা প্রতিবেদক : শেয়ারবার্তা প্রতিবেদক
  2. [email protected] : muzahid : muzahid
  3. [email protected] : শেয়ারবার্তা : nayan শেয়ারবার্তা
  4. [email protected] : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে আসা কোম্পানির লভ্যাংশ হার অনেক কম
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০১:৫০ পিএম

বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে আসা কোম্পানির লভ্যাংশ হার অনেক কম

  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৭ নভেম্বর, ২০১৯

বুক বিল্ডিংয়ে যোগ্য বিনিয়োগকারীদের দ্বারা কোম্পানিগুলোর শেয়ার দর অতিমূল্যায়িত হওয়ার খেসারত দিতে হচ্ছে পুরো পুঁজিবাজারকে। একদিকে অতিমূল্যায়িত শেয়ারগুলো এখন ইস্যু মূল্যের নিচে নেমে আসায় বিনিয়োগকারীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অন্যদিকে একই কারণে ওই কোম্পানিগুলো থেকে লভ্যাংশ প্রাপ্তির হার হবে অনেক কম।

বুক বিল্ডিংয়ে অতিমূল্যায়িত কোম্পানিগুলোর পর্ষদ ২০১৮-১৯ অর্থবছরের ব্যবসায় গড়ে ২.৮০ শতাংশ হারে লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। যেখানে অভিহিত মূল্যে আসা কোম্পানিগুলোর পর্ষদ গড়ে ১৩.২৫ শতাংশ হারে লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এছাড়া বুক বিল্ডিংয়ের কোম্পানিগুলোর থেকে ব্যাংকে ফিক্সড ডিপোজিটে ২.৮০ শতাংশের থেকে বেশি হারে রিটার্ন পাওয়া যাবে।

পুঁজিবাজার বিশ্লেষক আবু আহমেদ বলেন, পৃথিবীর অন্যান্য দেশে বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে যোগ্য বিনিয়োগকারীরা একটি কোম্পানির শেয়ারের যোগ্য দর মূল্যায়ন করে। আর আমাদের দেশে যোগ্য বিনিয়োগকারীরা করে অতিমূল্যায়ন। যে কারণে নির্ধারিত দর অনুযায়ী লভ্যাংশ পাওয়া যায় না। আসলে যাদের আমরা যোগ্য বিনিয়োগকারী বলি, প্রকৃতপক্ষে তারা অযোগ্য।

২০১৬ সালে চালু হওয়ার পরে বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে ৬টি কোম্পানি পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়েছে। যোগ্য বিনিয়োগকারীরা এই কোম্পানিগুলোর শেয়ার গড়ে ৬০.৬৭ টাকা কাট-অফ প্রাইস নির্ধারণ করে। আর এই দরের বিপরীতে কোম্পানিগুলোর পর্ষদ ২০১৮-১৯ অর্থবছরের ব্যবসায় গড়ে ২.৮০ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।

অপরদিকে ২০১৬ সাল থেকে এ পর্যন্ত অভিহিত মূল্যে ২৬টি কোম্পানি তালিকাভুক্ত হয়েছে। এ কোম্পানিগুলোর পর্ষদ ২০১৮-১৯ অর্থবছরের ব্যবসায় গড়ে ১৩.২৫ শতাংশ হারে লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।

কাট অফ প্রাইসে আমান কটনের লভ্যাংশ ২.৫ শতাংশ, বসুন্ধরা পেপারে ১.৮৮ শতাংশ, এস্কোয়ার নিটের ৩.৩৩ শতাংশ, একমি ল্যাবরেটরিজের ৪.১২ শতাংশ, রানার অটোমোবাইলের ২ শতাংশ, আমরা নেটওয়ার্কের ৩.০৮ শতাংশ। এই কোম্পানিগুলোর কাট অফ প্রাইসের গড় লভ্যাংশ ২.০৮ শতাংশ।

অভিহিত মূল্যে আসা কোম্পানিগুলোর লভ্যাংশ হলো ফরচুন সুজের ২০ শতাংশ, জেনেক্স ইনফোসিসের ২০ শতাংশ, নাহি এ্যালুমিনিয়ামের ১৫ শতাংশ, বাংলাদেশ ন্যাশনাল ইন্সু্যুরেন্সের ১২ শতাংশ, ড্রাগন সোয়েটারের ১০ শতাংশ, ওয়াইম্যাক্স ইলেকট্রোডের ১২.৫০ শতাংশ, নূরানী ডাইংয়ের ১০, শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজের ১ শতাংশ, প্যাসিফিক ডেনিমের ১৪ শতাংশ এবং কোম্পানিগুলোর গড় লভ্যাংশ ১৩.২৫ ঘোষণা করেছে।

শেয়ারবার্তা / মিলন

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:

ভালো লাগলে শেয়ার করবেন...

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ