1. [email protected] : শেয়ারবার্তা প্রতিবেদক : শেয়ারবার্তা প্রতিবেদক
  2. [email protected] : muzahid : muzahid
  3. [email protected] : শেয়ারবার্তা : nayan শেয়ারবার্তা
  4. [email protected] : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
নগদ লভ্যাংশ প্রদানে ঝোঁক ব্যাংক খাতের
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৪৬ এএম

নগদ লভ্যাংশ প্রদানে ঝোঁক ব্যাংক খাতের

  • আপডেট সময় : সোমবার, ৯ মে, ২০২২
share-sh

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলো বেশ কিছু বছর ধরে নগদ লভ্যাংশ দিয়ে আসছে। ব্যাংক খাত নিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনার মধ্যেও পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর লভ্যাংশ বেড়েই চলেছে। গত ডিসেম্বরে সমাপ্ত অর্থবছরের জন্য ব্যাংকগুলোর এরই মধ্যে লভ্যাংশ ঘোষণা শেষ হয়েছে। ঘোষিত লভ্যাংশই যদি বিতরণ করা হয়, তাহলেও এবার ব্যাংকগুলো তার শেয়ারধারীদের মধ্যে বিতরণ করবে মোট ২ হাজার ৬৯১ কোটি ১০ লাখ টাকা।

তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর মধ্যে প্রাইম ব্যাংক সাড়ে ১৭ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করে, যেটি সর্বোচ্চ। এজন্য ব্যাংকটি লভ্যাংশ বিতরণ করবে প্রায় ১৯২ কোটি ৪৯ লাখ টাকা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ব্যাংক এশিয়া ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করে। টাকার অঙ্কে প্রায় ১৭৫ কোটি টাকা নগদ লভ্যাংশ দেবে ব্যাংক এশিয়া।

কয়েক বছর ধরে বেশ কিছু ব্যাংকের নগদ লভ্যাংশ এতটাই ভালো দিয়ে আসছে যে, এখন ব্যাংকে সঞ্চয়ী হিসাবে টাকা রাখলে যে হারে সুদ পাওয়া যায়, বেশ কিছু ব্যাংকের শেয়ার কিনে রাখলে তার চেয়ে বেশি টাকা পাওয়া যায়। সঙ্গে আসে বোনাস শেয়ারও। নতুন শেয়ার যোগ হওয়ায় যাতে শেয়ারের ক্রয়মূল্য ক্রমেই কমে আসে আর এ কারণে পরের বছরগুলোতে একই হারে নগদ লভ্যাংশ পেতে থাকলে লভ্যাংশের ইল্ড বেশি আসে।

২০২০ সালে ব্যাংকগুলো প্রথমবারের মতো আড়াই হাজার কোটি টাকার বেশি নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছিল। এর পাশাপাশি বেশ কিছু ব্যাংক বোনাস শেয়ার ও কিছু ব্যাংক নগদের পাশাপাশি বোনাস শেয়ার দিয়েছিল। পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত মোট ৩৩টি ব্যাংক। এর মধ্যে গত ডিসেম্বরে সমাপ্ত আর্থিক বছরের জন্য আটটি ব্যাংক কেবল নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। মোট ১৮টি ব্যাংক নগদ ও বোনাস মিলিয়ে লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। আর মাত্র পাঁচটি ব্যাংক কেবল বোনাস শেয়ার ঘোষণা করেছে।

১০ শতাংশ বা শেয়ারপ্রতি ১ টাকা করে বিতরণ করবে ইসলামী ব্যাংক। অর্থাৎ এই ব্যাংকটির বিনিয়োগকারীরা পাবেন শেয়ার সংখ্যার সমান ১৬০ কোটি ৯৯ লাখ ৯০ হাজার ৬৬৮ টাকা। আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক ১৫ শতাংশ অর্থাৎ শেয়ারপ্রতি দেড় টাকা হারে বিতরণ করবে। এই হিসাবে ব্যাংকটি বিতরণ করবে ১৫৯ কোটি ৭৩ লাখ ৫৩ হাজার ২৭৭ টাকা ৫০ পয়সা। এক্সিম ব্যাংকও দেবে ইসলামী ব্যাংকের মতো শেয়ারপ্রতি ১ টাকা। এই হিসাবে ব্যাংকটি বিতরণ করবে মোট ১৪৪ কোটি ৭৫ লাখ ৫৭ হাজার ৩৪৪ টাকা। যমুনা ব্যাংকের লভ্যাংশের হারও প্রাইম ব্যাংকের সমান, শেয়ারপ্রতি ১ টাকা ৭৫ পয়সা। তবে ব্যাংকটির শেয়ারসংখ্যা তুলনামূলক কম। এতে ব্যাংকটি বিতরণ করবে ১৩১ কোটি ১১ লাখ ৪৪ হাজার ৮৮৭ টাকা ৫০ পয়সা। পূবালী ব্যাংক শেয়ারপ্রতি দেবে ১ টাকা ২৫ পয়সা। এই হিসাবে ব্যাংকটি বিতরণ করবে মোট ১২৮ কোটি ৫২ লাখ ৬৭ হাজার ৭৭৩ টাকা ৭৫ পয়সা। ঢাকা ব্যাংক বিতরণ করবে শেয়ারপ্রতি ১ টাকা ২০ পয়সা। এই হিসাবে ব্যাংকটির বিনিয়োগকারীরা পাবেন মোট ১১৩ কোটি ৯৫ লাখ ৪৯ হাজার ৭০৪ টাকা ৮০ পয়সা।

নগদ ও বোনাস মিলিয়ে যেসব ব্যাংক লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে, তার মধ্যে নগদে সবচেয়ে বেশি বিতরণ করবে সিটি ব্যাংক। এই ব্যাংকটি সাড়ে ১২ শতাংশ করে নগদ ও সাড়ে ১২ শতাংশ বোনাস শেয়ার দেবে। এই হিসাবে ব্যাংকটি বিতরণ করবে ১৩৩ কোটি ৪০ লাখ ৭ হাজার ৪৯২ টাকা ৫০ পয়সা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ প্রিমিয়ার ব্যাংক এবার লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে সাড়ে ২২ শতাংশ (সাড়ে ১২ শতাংশ নগদ ও ১০ শতাংশ বোনাস)। এর মধ্যে নগদে ১ টাকা ২৫ পয়সা করে মোট ১৩০ কোটি ৩৮ লাখ ৩৮ হাজার ৪০৮ টাকা ৭৫ পয়সা দেয়া হবে। পাশাপাশি ব্যাংকটি বোনাস শেয়ার হিসাবে ইস্যু করবে ১০ কোটি ৪৩ লাখ ৭ হাজার ৭২টি। তৃতীয় সর্বোচ্চ ১২৯ কোটি ১৫ লাখ ২১ হাজার ২৮৫ টাকা দেবে মার্কেন্টাইল ব্যাংক। এই ব্যাংকটি সাড়ে ১২ শতাংশ নগদের পাশাপাশি ৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার দেবে। এনসিসি ব্যাংক বিতরণ করবে ১২২ কোটি ২ লাখ ৪৫ হাজার ১৬০ টাকা ৪০ পয়সা। এই ব্যাংকটি শেয়ারপ্রতি ১ টাকা ২০ পয়সার পাশাপাশি ৪ শতাংশ বোনাস শেয়ারও দেবে ব্যাংকটি।

নগদ ও বোনাস মিলিয়ে মোট ২৫ শতাংশ লভ্যাংশ দেবে ইবিএল। এর মধ্যে নগদে শেয়ার প্রতি ১ টাকা ২৫ পয়সা হারে ১১৯ কোটি ২৩ লাখ ৩০ হাজার ৫৮৫ টাকা দেয়া হবে নগদে। আরও সাড়ে ১২ শতাংশ বোনাস শেয়ারও দেয়া হবে। ডাচ্-বাংলা ব্যাংক সাড়ে ১৭ শতাংশ হিসাবে বিতরণ করবে ১১০ কোটি ৬৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকা। এই ব্যাংকটি ১০ শতাংশ বোনাস শেয়ারও দেবে। ব্র্যাক ব্যাংক সাড়ে ৭ শতাংশ নগদ ও সাড়ে ৭ শতাংশ বোনাস শেয়ার ঘোষণা করেছে। ব্যাংকটির বিনিয়োগকারীরা পাবেন ১০৪ কোটি ৪১ লাখ ২৯ হাজার ২৯৯ টাকা ২৫ পয়সা। সমপরিমাণ বোনাস শেয়ারও পাবেন বিনিয়োগকারীরা।

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক এবার শেয়ারপ্রতি ১ টাকা হিসাবে শেয়ারসংখ্যার সমপরিমাণ টাকা বিতরণ করতে যাচ্ছে। সঙ্গে দেয়া হবে ৫ শতাংশ বোনাস। সাউথইস্ট ব্যাংক এবার ৮ শতাংশ নগদের পাশাপাশি ৪ শতাংশ বোনাস শেয়ার ঘোষণা করেছে। ব্যাংকটি বোনাস শেয়ারের পাশাপাশি নগদে বিতরণ করবে ৯৫ কোটি ১১ লাখ ৫২ হাজার ৪১৭ টাকা ৬০ পয়সা। ট্রাস্ট ব্যাংক ১০ শতাংশ বোনাসের পাশাপাশি নগদে বিতরণ করবে শেয়ারপ্রতি ১ টাকা ২৫ পয়সা করে। ব্যাংকটির বিনিয়োগকারীরা পাবেন মোট ৮৮ কোটি ৪৫ লাখ ৩১ হাজার ৯৭০ টাকা। উত্তরা ব্যাংক ১৪ শতাংশ বোনাসের পাশাপাশি সমপরিমাণ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এই হিসাবে বিনিয়োগকারীরা নগদে পাবেন ৭৯ কোটি ৫ লাখ ৫৬ হাজার ৭৪৪ টাকা ৬০ পয়সা। এনআরবিসি সাড়ে ৭ শতাংশ বোনাসের পাশাপাশি সমপরিমাণ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এই ব্যাংকটি তার শেয়ারের বিপরীতে বিতরণ করবে ৫৫ কোটি ৩২ লাখ ৩২ হাজার ১৩৫ টাকা ২৫ পয়সা।

ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামিক ব্যাংক ৫ শতাংশ বোনাস শেয়ারের পাশাপাশি সমপরিমাণ নগদ লভ্যাংশ দিচ্ছে। এতে ব্যাংকটি লভ্যাংশ দেবে ৪৯ কোটি ৮০ লাখ ৯৯ হাজার ১০৫ টাকা ৫০ পয়সা। ইউনিয়ন ব্যাংকের লভ্যাংশও এসেছে সমপরিমাণ। ৫ শতাংশ বোনাসের ব্যাংকটি নগদ লভ্যাংশ দেবে ৪৯ কোটি ৩৪ লাখ ৬৬ হাজার ৮৮০ টাকা। এসআইবিএলের লভ্যাংশও অন্য দুটির মতোই এসেছে ১০ শতাংশ। ৫ শতাংশ বোনাসের পাশাপাশি তারা বিতরণ করবে ৪৯ কোটি ২৪ লাখ ৫৪ হাজার ৪২২ টাকা। স্ট্যান্ডার্ন্ড ব্যাংক ৩ শতাংশ বোনাস শেয়ারের পাশাপাশি নগদে বিতরণ করবে ৩০ কোটি ৯৩ লাখ ৪২ হাজার ১৬৭ টাকা। সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার ব্যাংক ১ শতাংশ বোনাসের পাশাপাশি ৩ শতাংশ নগদ হিসাবে ২৪ কোটি ৪৮ লাখ ৯ হাজার ৪০১ টাকা লভ্যাংশ দেবে। সবচেয়ে কম ১৬ কোটি ৭১ লাখ ৬৭ হাজার ৭৩৪ টাকা লভ্যাংশ দেবে এবি ব্যাংক। ৩ শতাংশ বোনাসের পাশাপাশি ২ শতাংশ নগদ হিসেবে এই লভ্যাংশ বিতরণ করবে তারা।

এর বাইরে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক এবার লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে ১০ শতাংশ বোনাস। মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক ১০ শতাংশ বোনাস, আইএফআইসি ৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার দেবে। ২০২০ সালে নগদ লভ্যাংশ বিতরণ নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের আপত্তিতে পড়া ওয়ান ব্যাংক এবার কেবল বোনাস লভ্যাংশ বিতরণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ব্যাংকটির আয় কমে যাওয়ার পর ৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার বিতরণ করার ঘোষণা দিয়েছে। আর রাষ্ট্রায়ত্ত রূপালী ব্যাংকও এখন পর্যন্ত কেবল বোনাস শেয়ার ইস্যুর ধারাবাহিকতা থেকে বের হতে পারেনি। এবার ব্যাংকটি ২ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। ঋণ কেলেঙ্কারিতে আইসিবি ইসলামী ব্যাংক ও ন্যাশনাল ব্যাংক লোকসান করার পর লভ্যাংশ না দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ।

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:

ভালো লাগলে শেয়ার করবেন...

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
Dse

টানা তিন কার্যদিবস পতন

  • ৩১ জানুয়ারী ২০২৩
  • মুনাফায় ফিরেছে রহিমা ফুড

  • ৩০ জানুয়ারী ২০২৩