1. [email protected] : শেয়ারবার্তা প্রতিবেদক : শেয়ারবার্তা প্রতিবেদক
  2. [email protected] : muzahid : muzahid
  3. [email protected] : শেয়ারবার্তা : nayan শেয়ারবার্তা
  4. [email protected] : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
এমটিবির ৫০০ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:১০ এএম

এমটিবির ৫০০ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২২

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক (এমটিবি) লিমিটেডের ৫০০ কোটি টাকার সাবঅর্ডিনেটেড বন্ড ইস্যুর প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। সংস্থার চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ৮৪২তম কমিশন সভায় গতকাল এ অনুমোদন দেয়া হয়।

সভা শেষে বিএসইসির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের ৫০০ কোটি টাকার ফুললি রিডেমেবল, নন-কনভার্টিবল, আনসিকিউরড, ফ্লোটিং রেটবিশিষ্ট পঞ্চম সাবঅর্ডিনেটেড বন্ড ইস্যুর প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিশন। সাত বছর মেয়াদি বন্ডটি স্থানীয় আর্থিক প্রতিষ্ঠান, বীমা কোম্পানি, করপোরেট ও উচ্চ সম্পদশালী একক যোগ্য বিনিয়োগকাীদের মাঝে প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে ইস্যু করা হবে। এ বন্ডের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য ১ কোটি টাকা।

বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক কর্তৃপক্ষ তাদের ব্যাংকের টিয়ার-২ মূলধনের ভিত্তি শক্তিশালী করার পাশাপাশি করপোরেট, এসএমই রিটেইল ঋণের পোর্টফোলিও বৃদ্ধি এবং ট্রেজারি সিকিউরিটিজ ও অন্যান্য ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করা হবে।

বন্ডটির ট্রাস্টি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে ইউসিবি ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড। আর ম্যান্ডেটরি লিড অ্যারেঞ্জর ও কো-অ্যারেঞ্জার হিসেবে কাজ করছে যথাক্রমে আরএসএ অ্যাডভাইজরি লিমিটেড ও এমটিবি ক্যাপিটাল লিমিটেড। বন্ডটিকে অল্টারনেটিভ ট্রেডিং বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার শর্ত দেয়া হয়েছে।

এর আগে চলতি বছরের ৩১ মে ডিএসইর মাধ্যমে ব্যাংকটি জানায় তারা এ বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে ৫০০ কোটি টাকা সংগ্রহ করতে চায়। এ বিষয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমোদন নেয়ার কথাও জানানো হয় তখন।

২০০৩ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এমটিবির অনুমোদিত মূলধন ১ হাজার কোটি টাকা। পরিশোধিত মূলধন ৮৯৩ কোটি ৭৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা। রিজার্ভে রয়েছে ৯৬২ কোটি ২০ লাখ টাকা। ব্যাংকের মোট শেয়ার সংখ্যা ৮৯ কোটি ৩৭ লাখ ৪৫ হাজার ২২৪। এর মধ্যে ৩৬ দশমিক ৭৬ শতাংশ রয়েছে উদ্যোক্তা পরিচালকদের কাছে। এছাড়া প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ২৯ দশমিক ৭৫ শতাংশ, বিদেশী বিনিয়োগকারীদের কাছে দশমিক ১৬ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে বাকি ৩৩ দশমিক ৩৩ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:

ভালো লাগলে শেয়ার করবেন...

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
Dse

টানা তিন কার্যদিবস পতন

  • ৩১ জানুয়ারী ২০২৩
  • মুনাফায় ফিরেছে রহিমা ফুড

  • ৩০ জানুয়ারী ২০২৩